সোমবার | ০৩ অগাস্ট, ২০২০

জেলা পরিষদের বসানো ডাষ্টবিনের আর্বজনা পরিস্কার করবে না পৌরসভা

প্রকাশঃ ১৫ জুলাই, ২০২০ ০৪:২৬:২০ | আপডেটঃ ০৩ অগাস্ট, ২০২০ ০১:৫০:৫৩  |  ১০৩৩
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নে শহরের বিভিন্ন স্থানে বসানো হয়েছে ময়লা ফেলার ডাষ্টবিন। জনসাধারন যত্রতত্র যেন ময়লা না ফেলেন সে কারণে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে প্রায় ৪০টি ডাষ্টবিন বসিয়েছে জেলা পরিষদ, কিন্তু জেলা পরিষদের বসানো ডাষ্টবিনগুলোতে ময়লা অপসারন করবে না পৌরসভা এমনটা সাফ জানিয়ে দিলেন পৌর মেয়র।

জানা গেছে, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চলতি অর্থ বছরে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার অংশ হিসেবে রাঙামাটি পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ৪০টি ডাষ্টবিন বসিয়েছে যাতে পৌরবাসী যত্রতত্র ময়লা না ফেলেন, কিন্তু এই নিয়ে বাঁধ সেজেছে পৌরসভা, পৌরসভাকে সরাসরি না দিয়ে জেলা পরিষদ নিজেরাই ডাষ্টবিন বসানোয়, ডাষ্টবিনের ময়লা পরিস্কার করার মৌখিক আপত্তি জানিয়েছেন রাঙামাটি পৌরসভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী।

তিনি জানান, পার্বত্য জেলা পরিষদ এর কাজ উন্নয়ন করা আর পৌরসভার কাজ মানুষকে সেবা দেয়া ও ময়লা আর্বজনা পরিস্কার করা, আইন এবং প্রবিধান অনুযায়ী পৌর এলাকায় কাজ করতে হলে পৌরসভার অনুমতি নিতে হবে। জেলা পরিষদ ডাষ্টবিনগুলো পৌরসভাকে বুঝিয়ে দেয়নি, তাই যেহেতু তারা ডাষ্টবিন বসিয়েছে তারাই পরিস্কার করবে, পৌরসভার পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা জেলা পরিষদের ডাষ্টবিনের আর্বজনা পরিস্কার করবে না। যদি পৌরসভার সাথে সমন্বয় করে জেলা পরিষদ ডাষ্টবিন বসাতো তাহলে পৌরসভা ময়লা আর্বজনা পরিস্কার করতো। এখন পৌরসভা কেবল নিজেদের বসানো ডাষ্টবিনের ময়লা আর্বজনা পরিস্কার করবে, জেলা পরিষদের বসানো ডাষ্টবিনের ময়লা পৌরসভা পরিস্কার করবে না।

এদিকে জেলা পরিষদের কয়েকটি ডাষ্টবিন বসানোর সময় প্যানেল মেয়র জামাল উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। তবে কল রিসিভ না করায় তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

বিষয়টি নিয়ে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হাজী মুছা মাতব্বর জানান, রাঙামাটি শহরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা রাখতে পৌরসভাকে সহযোগিতা করার উদ্দ্যেশে ডাষ্টবিনগুলো পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে বসানো হয়েছে। যদি পৌরসভা ময়লা আর্বজনা পরিস্কার না করে তাহলে পৌরসভার সামনে জনগন ময়লা আর্বজন ফেলবে। প্রয়োজনে জনগনকে বলব পৌরসভাকে  ট্যাক্স না দিতে।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions