রবিবার | ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

রাঙামাটির পুরো জেলায় এখন চাষ হচ্ছে মুল্যবান সবজি ব্রোকলি

হিমেল চাকমা, রাঙামাটি। রাঙামাটির পুরো জেলায় এখন ব্রোকলির চাষ হচ্ছে।  প্রতিটি উপজেলায় ফলনও হয়েছে বেশ। সম্প্রতি রাঙামাটি জেলার নানিয়াচর উপজেলার ঘিলাছড়ি ইউনিয়নে বুয়ো আদামের রিপন চাকমার ব্রোকলি ক্ষেতে গিয়ে দেখা যায় প্রতিটি চারা ফুটেছে ব্রোকলি। আকারে

বিনা মাসুলে ডাক বিভাগের পরিবহনে রাজধানী পৌঁছবে খাগড়াছড়ির ফলজপণ্য

সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। বিনা মাসুলে ডাক বিভাগের পরিবহনে রাজধানী পৌঁছবে খাগড়াছড়ি জেলার উৎপাদিত সব ধরনের ফলজপণ্য। ডাক অধিদপ্তরের ‘কৃষকবন্ধু’ কর্মসূচির আওতায় ডিজিটাল প্লাটফর্মের মাধ্যমে কৃষকরা ঘরে বসেই বিক্রয়লদ্ধ পণ্যের অর্থ পেয়ে যাবেন। এর ফলে কোন মধ্যস্বত্বভোগী ছাড়াই ঘরে বসেই পণ্যের উপযুক্ত মূল্য পাবেন।

পাহাড়েও সফল ব্রি হাইব্রিড ধান-৫

সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। অন্যান্য ধানের জাত হেক্টর প্রতি সর্বোচ্চ ফলন হয় ছয় থেকে সাত মেট্রিকটন। অথচ ‘ব্রি হাইব্রিড ধান-৫’ উৎপাদন হয়েছে প্রায় ৯ মেট্রিকটন। স্থানভেদে প্রতি হেক্টরে দুই থেকে তিন মেট্রিকটন বেশি ফলন এসেছে। আর তাতেই সোনালী ধানের সাথে খুশির বান এসেছে কৃষকের আঙিনায়।

করোনার প্রভাবে ক্ষতির মুখে বাঘাইছড়ির তরুন উদ্যোক্তা

সিএইচটি টুডে ডট কম, সাজেক, বাঘাইছড়ি (রাঙামাটি। রাঙামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার তরুন উদ্যোক্তা আবু নাছের যে বয়সে বন্ধুদের সাথে আড্ডায় খেলাধুলায় মেতে থাকার কথা ঠিক সে সময়ে লেখাপড়ার পাশাপাশি ছোট একটি ফার্ম দিয়ে শুরু করে উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্ন, আস্তে আস্তে শ্রম ও মেধা খাটিয়ে তিনি সময়ের সাথে সাথে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বড় করতে থাকেন গড়ে তোলেন মিশ্র ফলজ বাগান ।

বান্দরবানে মুদি ও ওষুধের দোকান ছাড়া সকল মার্কেট ও দোকানপাট বন্ধ

কৌশিক দাশ, সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দীর্ঘদিন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার পর আজ থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালুর সিদ্ধান্ত হলে ও সকাল থেকে বান্দরবানের মুদি ও ওষুধের দোকান ছাড়া বন্ধ রয়েছে সকল মার্কেট ও দোকানপাট।

পরিবহনের অনুমতি না পাওয়ায় নষ্ট হচ্ছে ৬ কোটি টাকার বাঁশ

হিমেল চাকমা, রাঙামাটি। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে পরিবহন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় নষ্ট হচ্ছে প্রায় ছয় কোটি টাকার বাঁশ। পথের ধারে বা নদীর পাড়ে কড়া রোদে পুড়ে, বষ্টিতে ভিজে এসব বাঁশগুলো নষ্ট হচ্ছে। বন বিভাগ বাঁশ পরিবহনের অনুমতি বন্ধ রাখায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন বাঁশ ব্যবসায়ীরা । এছাড়া বাঁশ সরবরাহ ও আহরণ বন্ধ থাকায় অন্তত ৩০ হাজার অধিক শ্রমিক খাদ্য সংকটে পড়েছে।

আজ মধ্য রাত থেকে কাপ্তাই হ্রদে ৩ মাসের জন্য মাছ ধরা নিষিদ্ধ

সিএইচটি টুডে ডট কম,রাঙামাটি। রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়ে গেল মাছ ধরা। আজ (বৃহস্পতিবার ) রাত ১২টার পর হতে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে- যা বলবৎ থাকবে ৩১ জুলাই পর্যন্ত। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সর্ববৃহৎ কৃত্রিম জলরাশি বাংলাদেশের কাপ্তাই হ্রদে চলতি মৌসুমে হ্রদের ভারসাম্য রক্ষা এবং মাছের সুষ্ঠু ও প্রাকৃতিক প্রজনন, বংশ বিস্তার ও উৎপাদন বাড়াতে আদেশটি জারি করা হয়েছে।

নষ্ট হচ্ছে ২ কোটি টাকার বাঁশ, বন্ধ বনবিভাগের কার্যালয়

সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। করোনা ভাইরাসের কারণে খাগড়াছড়িতে কোটি টাকার লোকসানের মুখে বাঁশ ব্যবসায়ীরা। বিভাগীয় বন অফিস বন্ধ থাকায় মিলছে না বাঁশ পরিবহনের অনুমতি। এতে দুই কোটি টাকা লোকসান গুনছে ব্যবসায়ীরা। খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় বাবুছড়ায় দেশের অন্যতম বৃহৎ বাঁশের বাজার।

পাহাড়ের অর্থনীতিতে ভুমিকা রাখছে ফুলের ঝাড়ু

কৌশিক দাশ, সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবানের পাহাড়ে উৎপাদিত ফুল ঝাড়ু বিক্রি করে ভাগ্য বদলের চেষ্টা করছে বান্দরবানের  দরিদ্র ও শ্রমজীবি পরিবার। এই ফুল ঝাড়ু দরিদ্র মানুষের আর্থিক সংকট মোকাবেলায় সহায়ক হয়ে উঠেছে, সাময়িকের জন্য হলেও ফুল ঝাড়ু শ্রমজীবি মানুষকে এনে দিয়েছে কর্মসংস্থান ,আর এই ফুল ঝাড়ু এখন স্থানীয় বাজারের চাহিদা মিটিয়ে যাচ্ছে দেশের নানান প্রান্তে।

বান্দরবানে ইক্ষু আর গুড় উৎপাদন করে লাভবান হচ্ছে চাষীরা

সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। পার্বত্য জেলা বান্দরবানের অনেক জমিতে এখন চাষ হচ্ছে ইক্ষুর ,এক সময় যেসব জমিতে তামাক চাষ করে কৃষকেরা ক্ষতির মুখে পড়তো এখন সেই জমিতেই ইক্ষু চাষ করে ভাগ্য বদলের চেষ্টায় নেমেছে চাষীরা। শুধু ইক্ষু চাষ করেই কাজ শেষ নয় এখন ইক্ষু থেকে গুড় উৎপাদন করে আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছে অনেক চাষী।

দুর পাহাড়ে মৌ চাষেই সুখের সংসার শরবিন্দু চাকমার

হিমেল চাকমা,বিশেষ প্রতিনিধি, রাঙামাটি। মৌমাছি চাষ করে জীবন বদলীয়েছে রাঙামাটি সদর উপজেলার কুতুকছড়ি ইউনিয়নের আবাসিক এলাকার শরবিন্দু চাকমা (৫০)। এক সময় কৃষি কাজই ছিল তাঁর প্রধান পেশা। বর্তমানে তার পেশা মৌ চাষী। বর্তমানে তাঁর মৌ চাক আছে পাঁচটি। এ পাঁচটি মৌ চাক থেকে তার বাৎসরিক আয় সর্বনিম্ন ১ লাখ টাকা।

FIND US ON FACEBOOK
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions