শনিবার | ১৮ জানুয়ারী, ২০২০
পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ’র সমাপনী অনুষ্ঠান বান্দরবানের দুর্গম রুমা উপজেলার বগালেকে

প্রতিটা ইউনিয়ন পর্যায়ে একটি করে মডেল প্রসূতি বান্ধব কেন্দ্র চালু করা হবে : ডা. মোহাম্মদ শরীফ

প্রকাশঃ ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৪:২০:৪৪ | আপডেটঃ ১৭ জানুয়ারী, ২০২০ ০৬:২৪:২১  |  ১১০৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। সারাদেশের সাথে তাল মিলিয়ে স্বাস্থ্য সেবা জনগণের দৌরগোড়ায় পৌঁছে দিতে পার্বত্য এলাকায় প্রতিটা ইউনিয়ন পর্যায়ে একটি করে মডেল প্রসূতি বান্ধব কেন্দ্র চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. মোহাম্মদ শরীফ।

এসময় তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। আগামীতে ও বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়ন করা হবে।   

বৃহস্পতিবার সকালে বান্দরবানের রুমা উপজেলার বগালেকে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. মোহাম্মদ শরীফ এসব কথা বলেন ।

এসময় তিনি আরো বলেন,পার্বত্য এলাকার স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে আগের চেয়ে দ্বিগুণ অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হবে,সমতলের চেয়ে পার্বত্য এলাকার স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়নে প্রতিটা উপজেলায় ইউনিয়ন স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রকে মডেল প্রসূতিবান্ধব সেবা কেন্দ্র হিসেবে চালু করা হবে। প্রসূতি মায়েদের সুরক্ষায় পার্বত্য অঞ্চলকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে এবং কিশোরীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আরো নতুন নতুন প্রকল্প গ্রহণ করে জনগণের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা হবে।

এসময় তিনি আরো বলেন, জুলাই মাস থেকে বিভিন্ন ইউনিয়ন স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে বিনামুল্যে প্রসুতি মায়েদের চেকআপ করা হবে এবং চেকআপ করতে আসা সঙ্গীকে ও যাতায়াত ভাড়া দেয়া এবং প্রসবসেবার যাবতীয় অর্থ সরকারিভাবে প্রদান করা হবে। এসময় পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের পরিচালক ডা.মোহাম্মদ শরীফ রুমা উপজেলার দূর্গম বগালেকে নারীদের উন্নয়নে দ্রুত আরো প্রকল্প হাতে নেয়ার আশ^াস ও প্রদান করেন।

সভাপতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে বান্দরবান পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডা: অংচালু বলেন,পরিবারের কল্যাণ্যেও জন্য আমাদের সবাইকে কাজ করতে হবে। সরকার কিশোরী ও প্রসুতি নারী দের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিভিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছে,বিনামুল্যে ওষুধসহ সেবা প্রদান করে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করছে । এসময় তিনি আরো বলেন,আমরা বান্দরবান পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ বান্দরবানের সাতটি উপজেলায় স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে কাজ করছি এবং এই কাজের ফলাফল হিসেবে ২০১৮ সালে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহে সারাদেশে প্রথম স্থান অধিকার করেছি এবং আমরা আশাকরি আগামীতে ও বান্দরবানের পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সকল কমর্কতা ও কর্মচারীরাদেও আন্তরিকতায় আমরা বান্দরবান জেলায় প্রত্যান্ত পাহাড়ের আনাছে কানাছে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিব।

সমপানী অনুষ্ঠানে এসময় প্রধান অতিথি পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. মোহাম্মদ শরীফ, বান্দরবান পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক ডা: অংচালু,পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সহকারী পরিচালক এমরান হোসেন চৌধুরী, ডিস্ট্রিক কনসালট্যান্ট ডা: মো:নুুরুস সাফা চৌধুরী, মেডিকেল অফিসার ডা:নাজমুল হাসান সাঈদ,রুমা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উহ্লাচিং মার্মা,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নুম্রাউ মার্মাসহ পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিশেষজ্ঞ ডাক্তারগণ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় সমপানী অনুষ্ঠানে বগালেক পাড়ার প্রায় শতাধিক কিশোরী ও নারীদের বিনামুল্যে চিকিৎসা এবং ওষুধ প্রদান করে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারগণ।

স্বাস্থ্য |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions