শুক্রবার | ১৯ অক্টোবর, ২০১৮

রাঙামাটিতে বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস উদযাপিত

প্রকাশঃ ০২ এপ্রিল, ২০১৮ ০৭:৫৬:০৯ | আপডেটঃ ১৪ অক্টোবর, ২০১৮ ০২:৩০:২০  |  ৮৫

সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। “নারী ও বালিকাদের ক্ষমতায়ন, হোক না তারা অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রাঙামাটিতে বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস ২০১৮ উদযাপিত হয়েছে।

দিবসটি পালন উপলক্ষে সোমবার (০২এপ্রিল) সকালে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ কার্যালয় চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি গিয়ে আলোচনাসভায় মিলিত হয়।

রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ, সমাজসেবা অধিদপ্তর, প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র, শিল্পকলা একাডেমি ও স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা উপস্থিত ছিলেন।
রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা সমাজ সেবা বিভাগের আহ্বায়ক স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরার সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. নিহার রঞ্জন নন্দী, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল হক বুলবুল বক্তব্য রাখেন। দিবসটির গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে আলোচনাসভায় স্বাগত বক্তৃতা রাখেন জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (ভাঃ) রুপনা চাকমা।

আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, নানা কারণে দেশে আজ অটিজম সচেতনতা প্রয়োজন। শিশুরা অটিজম নিয়ে বড় হলেও তাদের সুচিকিৎসা দিলে অনেকাংশে ভালোভাবে জীবন যাপন করতে পারবে। সমাজ গঠনে অংশ নিয়ে তারাও দেশের উন্নয়নের মূল ¯্রােতধারায় অবদান রাখতে পারবে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অটিস্টিকদের কল্যাণে যেমন কাজ করে যাচ্ছেন তেমনি অটিজমের প্রসঙ্গ এলেই যার কথা এ মুহূর্তে সবচেয়ে বেশি উচ্চারিত হচ্ছে তিনি হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুল। সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের নেতৃত্বে ও প্রচেষ্টায় অটিস্টিকদের সেবা ও পুনর্বাসনে নিরলস কাজ করছে বাংলাদেশ। অটিস্টিকদের বোঝা না ভেবে তাদের মানব সম্পদে গড়ে তুলতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান চেয়ারম্যান।

আলোচনাসভা শেষে অটিজম শিশুদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন অতিথিরা। পরে সরকারি শিশু পরিবার এর শিশুদের নিয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions