শনিবার | ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের মামলায় মানবাধিকারকর্মী এ্যাডভোকেট সারাহকে গ্রেফতার

প্রকাশঃ ২৪ জুলাই, ২০২১ ০৩:১৯:০১ | আপডেটঃ ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৯:৩৮:৩০  |  ২১১
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবানে এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশ অভিযুক্ত মানবাধিকারকর্মী ও এ্যাডভোকেট সারাহ সুদীপা ইউনুছকে গ্রেপ্তার করেছে। ২৪ জুলাই (শনিবার) সকালে তাকে বান্দরবান সদরের বনরুপা পাড়ার নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ,তবে তার স্বামী ফয়সাল আহমেদ পলাতক রয়েছে।

গত ২২জুলাই রওশন আরা নামে এক নারী এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে বান্দরবানের  এক মানবাধিকার কর্মী এ্যাডভোকেট সারাহ সুদীপা ইউনুছ ও তার স্বামী ফয়সাল আহমেদ কে আসামী করে বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে,পরে পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চিকিৎসার করে আদালত নিয়ে গেলে আদালত নির্যাতিত শিশু জয়নাব আক্তার জোহরা (৯) কে চট্টগ্রামের হাটহাজারীর সেফহোমে (নিরাপদ আবাসন) প্রেরণের নির্দেশ দেন। বর্তমানে শিশুটি সেফহোমে রয়েছে।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি (তদন্ত) মো.সোহাগ রানা বলেন,শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে বান্দরবান সদর থানায় সারাহ সুদীপা ইউনুস (৪০) ও তার স্বামী ফয়সাল আহম্মেদ (৪৫) এর নামে শিশু আইন ,২০১৩ এর ৭০/৮০(১) এর ধারায় একটি মামলা দায়ের করেছে  তার এক প্রতিবেশি  রওশানা আরা আর এর অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযান পরিচালনা করে মামলার আসামী সারাহ সুদীপা ইউনুছকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, বান্দরবানে এক শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতনের ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে। নির্যাতিত শিশুটি জানায়, তাকে জ্বলন্ত মশার কয়েল দিয়ে ছ্যাকা দেয়াসহ বিভিন্নভাবে নির্যাতন করতে গৃহকর্তী সারাহ সুদীপা ইউনুছ। পরে শিশুটির এক প্রতিবেশি বাদী হয়ে গৃহকর্তী সারাহ সুদীপা ইউনুছ ও তার স্বামী ফয়সাল আহম্মেদ এর নামে বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে।


বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions