রবিবার | ২০ অক্টোবর, ২০১৯

কাপ্তাইয়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রভুদান চৌধুরী আর নেই

প্রকাশঃ ১০ এপ্রিল, ২০১৮ ০৮:৫০:২০ | আপডেটঃ ১৭ অক্টোবর, ২০১৯ ০৮:১৭:১৯  |  ৩২৫

সিএইচটি টুডে ডট কম, কাপ্তাই (রাঙামাটি)। একাত্তরের রনাঙ্গনের অকুতোভয় বীর সৈনিক কাপ্তাই উপজেলার চন্দ্রঘোনা খ্রিস্টিয়ান হাসপাতালের সাবেক কর্মকর্তা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রভুদান চৌধুরী আর নেই।


গত সোমবার সকাল ৭.৩০ ঘটিকায় ঢাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যু বরন করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। তিনি দীর্ঘদিন জটিল রোগে ভুগছিলেন। গত সোমবার রাত্র ৮.৪৫ টায় ঢাকা থেকে তাঁর মৃতদেহ তার দীর্ঘদিনের কর্মস্হল চন্দ্রঘোনা খ্রিস্টিয়ান হাসপাতালের স্টাফ কোয়ার্টার নিয়ে আসলে সর্বস্তরের মানুষ ছুঁটে যান তাকে দেখতে। এই সময় সেখানে আবেগ ঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

মঙ্গলবার সকালে সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার তাঁর বাসভবনে ছুঁটে যান, তিনি তাঁর পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানান।

এসময় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য প্রকৌশলী থোয়াইচিং মং মার্মা, জেলা আ'লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মফিজুল হক, কাপ্তাই উপজেলা আ'লীগের সভাপতি অংসুইচাইন চৌধুরী, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সুনীল কান্তি দে, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রবার্ট রোনাল্ট পিন্টু সহ স্হানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি এবং সর্বস্তরের জনগন উপস্থিত ছিলেন।


মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় তাঁর মরদেহ চন্দ্রঘোনা খ্রিস্টিয়ান হাসপাতাল চত্ত্বরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাঁর মরদেহের কফিনে জাতীয় পতাকা দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। কাপ্তাই থানা পুলিশের একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এসময় সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য প্রকৌশলী থোয়াইচিং মং মার্মা, আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য হাজী কামাল উদ্দিন, কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিকুল আলম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান অংসুচাইন চৌধুরী, কাপ্তাই সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আসলাম ইকবাল, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী সহ নানা শ্রেনী পেশার মানুষ উপস্থিত হয়ে  ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন। পরে তাঁকে চন্দ্রঘোনা ব্যাপ্টিস্ট চার্চ কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।





রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions