বুধবার | ০৫ অক্টোবর, ২০২২
রাঙামাটিতে

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে সিএনজি চলাচল বন্ধ ভোগান্তিতে মানুষ

প্রকাশঃ ০৬ অগাস্ট, ২০২২ ০৮:৫১:২৫ | আপডেটঃ ০৩ অক্টোবর, ২০২২ ০৯:১৭:২৫  |  ১৯৩
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। গত মধ্যরাত থেকে হঠাৎ করে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধিতে শনিবার সকাল থেকে রাঙামাটি-চট্টগ্রাম মহাসড়ক, রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি ও রাঙামাটি-বান্দরবান সড়কসহ রাঙামাটির অভ্যন্তরীণ যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। পূর্বঘোষণা ছাড়াই সড়ক পরিবহন বন্ধ হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, সরকার শুক্রবার রাতে ডিজেল ও কেরোসিন লিটার প্রতি ৩৪ টাকা বাড়িয়ে ১১৪ টাকা এবং অকটেনে ৪৬ টাকা দাম বাড়িয়ে করা হয় ১৩৫ টাকা। পেট্রল লিটার প্রতি ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। যে কারণে শনিবার সকাল থেকেই চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি-বান্দরবানগামী কোনো বাস রাঙামাটি থেকে ছেড়ে যায়নি। তাই জরুরি কাজে চট্টগ্রাসহ আশপাশের জেলায় যাতায়াতকারী ও অভ্যন্তরীণ একমাত্র গণপরিবহন সিএনজিচালিত অটোরিকশা বন্ধের কারণে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, জেলা শহরের রিজার্ভ বাজার নতুন বাসস্ট্যান্ড, বনরূপা, কলেজগেইট কাউন্টারসহ চট্টগ্রামগামী পাহাড়িকা পরিবহনের সব কাউন্টার বন্ধ রয়েছে। চট্টগ্রামগামী লোকাল গণপরিবহন দ্রুতযান সার্ভিসসহ খাগড়াছড়ি-বান্দরবানগামী লোকাল বাসও বন্ধ রয়েছে। সকালে কিছু সিএনজিচালিত অটোরিকশা শহরে চলাচল করলেও বাড়তি ভাড়া নিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে বিবাদের জের ধরে বন্ধ হয়ে যায় অটোরিকশাও। লোকাল বাস কিংবা অন্যান্য গণপরিবহন না থাকায় পাহাড়ি জেলা রাঙামাটির একমাত্র অভ্যন্তরীণ যোগাযোগমাধ্যম সিএনজিচালিত অটোরিকশা। সারাদেশে গ্যাসচালিত অটোরিকশা চলাচল করলেও পাহাড়ি সড়ক হওয়ায় রাঙামাটিতে অকটেনে সিএনজি চলাচল করে। যে কারণে হঠাৎ অকটেনের দাম বাড়ায় ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে সিএনজি অটোরিকশা চালানো বন্ধ রেখেছেন চালকরা। এতে করে জেলার পুরো যাতায়াত ব্যবস্থা বন্ধ থাকায় অচল হয়ে পড়ে রাঙ্গামাটি। তবে জেলার ছয় উপজেলার সঙ্গে নৌ-পথে লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

চট্টগ্রামগামী মো. ওয়াহিদ নামের এক শিক্ষার্থী জানান, আজ (শনিবার) চট্টগ্রামে রেল বিভাগের নিয়োগ পরীক্ষা। রাঙামাটি থেকে অনেক চাকরিপ্রত্যাশী চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্য বাস বন্ধ হয়ে পড়ায় বিপদে পড়েছেন। আমি নিজেকে সহকারী রেল মাস্টার পরীক্ষার্থী। এখন সিএনজিঅটোরিকশা চালকরাও বাড়তি দাম চাইছেন।

কয়েকজন সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক জানান, হঠাৎ করেই অকটেনের দাম ৪৬ টাকা লিটারে বেড়েছে। ৮৯ টাকার অকটেনের দাম এখন ১৩৫ টাকা। এভাবে তো পুরোনো ভাড়া নিয়ে গাড়ি চালানো সম্ভব না। তাই আমরা গাড়ি চালানো বন্ধ রেখেছি।

এদিকে, রাঙামাটি জেলা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু জানান, চালকরা সবাই মিলে সিএনজি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আমরা তাদের সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত। ভাড়া নিয়ে বাকবিত-ায় এক চালককে যাত্রীরা মারধর করেছে। এখন আমরা ভাড়া পুননির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত গাড়ি চালাব না।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, রোববার সকাল ১১টায় জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধি সংক্রান্ত উদ্ভূত পরিস্থিতি বিষয়ক বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে এসব প্রসঙ্গে সিদ্ধান্ত আসতে পারে।


রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions