বুধবার | ২২ অগাস্ট, ২০১৮

বান্দরবানে ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীর পাশে বিএনকেএস

প্রকাশঃ ০৯ এপ্রিল, ২০১৮ ০৮:১৬:৫৪ | আপডেটঃ ২২ অগাস্ট, ২০১৮ ০৭:৫৩:০৭  |  ১৩৩

সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবানে গত ১লা এপ্রিল’১৮ ইং তারিখ পিতা কর্তৃক ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রীর সুবিচার নিশ্চিত করতে বলিপাড়া নারী কল্যাণ সমিতি (বিএনকেএস) মেয়েটিকে সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে এবং এই কাজে স্থানীয় প্রশাসন বিএনকেএসকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করছে। এই জঘন্য ঘটনাটি পুলিশের নজরে আসার সঙ্গে সঙ্গে সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ গোলাম ছরোয়ার দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।  
বান্দরবান সদর হাসপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসকের সুপারিশক্রমে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এই ছাত্রীর মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। যাতায়াতকালে ছাত্রীর নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা রক্ষার্থে চট্টগ্রামে যাতায়াতের জন্য সংগঠনটির পক্ষ থেকে একটি মাইক্রোবাস ভাড়া করে দিয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে সহযোগিতা প্রদান করা হয়।
সিডা’র অর্থায়নে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের ‘জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধ ও মোকাবেলা কর্মসূচি’র সহযোগী সংস্থা হিসেবে বান্দরবানে কাজ করছে বিএনকেএস। এই প্রকল্পের আওতায় এসব সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে বলে জানান প্রকল্প সমন্বয়কারী সাং থুই প্রু। প্রকল্প সমন্বয়কারী সাং থুই প্রু জানান, নিপীড়নের শিকার ওই ছাত্রীকে তাঁর মা অভিভাবক হিসাবে গ্রহণ না করা পর্যন্ত পুলিশের নিরাপত্তা সেলে থাকাকালীন পোশাক ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করা হয়েছিল। বর্তমানে তাঁর পরিবারের পাশাপাশি পাড়াবাসীদেরকেও কাউন্সেলিং করা হচ্ছে যাতে ছাত্রীটি স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে পারে। ছাত্রীটির নিরাপত্তা ও সুবিচার নিশ্চিত করতে আইনী পদক্ষেপের তদারকীসহ পরিবারটিকে বিএনকেএস এর পক্ষ হতে সার্বিক সহযোগিতা  প্রদান করা হবে বলে জানান বিএনকেএস এর দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা। তিনি আরও জানান ধর্ষনের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে  বান্দরবান সদর থানা পুলিশের সহযোগিতায় মোঃ সাইদুল ইসলাম (৫২) কে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং আসামীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০১, ধারা ৯/১ এর আওতায় বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।
জানা যায়, অভিযুক্ত মোঃ সাইদুল ইসলামের প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার পর তাঁর শ্যালিকা শিরোফা বেগমকে বিয়ে করেন। শিরোফা বেগমের নিজ বাড়ি বরিশালে আর বান্দরবান সদরের সিদ্দিক নগর, ৬ নং ওয়ার্ডে তারা বসবাস করেন। ঘটনার কয়েকদিন  দিন আগে অসুস্থ মাকে দেখার জন্য বরিশাল যায় মা শিরোফা বেগম। মায়ের অনুপস্থিতে পিতা কর্তৃক যৌন নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটে। সকাল বেলা সে ঘটনাটি তার বড় বোন ও প্রতিবেশিদের নিকট প্রকাশ করে এবং প্রতিবেশিরা মোঃ সাইদুল ইসলামকে মারধর করে পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে।

বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions