রবিবার | ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৯
রাঙামাটিতে

পাহাড় ধস ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশঃ ২৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০১:৩৪:০২ | আপডেটঃ ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০৮:৪৩:০৫  |  ৯১৯
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটিতে পাহাড় ধস ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় সচেতনতামূলক এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় শহরের রূপনগর এলাকায় জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদের নেতৃত্বে ঝুঁকিপূর্ণ লোকজনের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও স্থানীয় বিভিন্ন স্তরের প্রতিনিধিরা। সভায় জেলা প্রশাসক ছাড়াও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. শফি কামাল, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) তাপস শীলসহ প্রশাসনিক ও পুলিশ কর্মকর্তা এবং গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক বলেন, ২০১৭ সালের ১৩ জুন পাহাড় ধসের দুর্যোগে রাঙামাটিতে ৫ সেনা সদস্যসহ ১২০ জনের প্রাণহানি হয়েছে। ক্ষতি হয়েছে ব্যাপক। আমরা আর রাঙামাটিতে এ ধরনের কোনো দুর্যোগে কোনো প্রাণহানি চাই না। চাই না ব্যাপক ক্ষতি। তাই আগের বছরের অভিজ্ঞতার শিক্ষা নিয়ে দুর্যোগ মোকাবেলায় সবাইকে সচেতন হতে হবে। ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বাস করা সব লোকজনকে স্বেচ্ছায় নিরাপদে সরে যেতে হবে। কোনো অবস্থাতেই ঝুঁকিপূর্ণ ভিটায় বাস করা যাবে না। এরই মধ্যে বৃষ্টিপাত ও ঝড়-তুফান শুরু হয়েছে। এ অবস্থায় দ্রুত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থান ছাড়তে হবে। অন্যথায় প্রশাসন উচ্ছেদে বাধ্য হবে।




তিনি বলেন, সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় দুর্যোগ মোকাবেলায় ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। সরকারিভাবে জেলা সদরসহ উপজেলা পর্যায়ে স্থায়ী ও অস্থায়ী আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হচ্ছে। এছাড়া দুর্যোগ মোকাবেলায় বর্ষার আগে রাস্তাঘাট মেরামতসহ প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি প্রস্তুত রাখা হচ্ছে। মজুদ রাখা হচ্ছে খাদ্য, ত্রাণ ও জ্বালানিসহ প্রয়োজনীয় জিনিষপত্র। পাশাপাশি দুর্যোগ মোকাবেলায় সেনাবাহিনী, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসসহ বিভিন্ন সংস্থাকে পূর্ব প্রস্তুতি নিতে বলে দেয়া হয়েছে। এখন দুর্যোগ মোকাবেলা দরকার শুধু সবার সমন্বিত প্রচেষ্টা আর সচতেনতা।     

পরিবেশ |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions