মঙ্গলবার | ২০ নভেম্বর, ২০১৮
দুর্গা পুজামন্ডপ পরিদর্শনকালে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

বর্তমান সরকারের আমলে সবচেয়ে বেশী নিরাপদে আছেন সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠী : বৃষ কেতু চাকমা

প্রকাশঃ ১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ০৯:২৭:১৬ | আপডেটঃ ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০৪:১৪:০২  |  ৩০২
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দূর্গাপুজার সদর উপজেলার বিভিন্ন পুজামন্ডপ বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) সন্ধ্যায় পরিদর্শন করেছেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা। পুজামন্ডপ পরিদর্শন কালে আরো উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য পরিষদ সদস্য স্মৃতি বিকাশ ত্রিপরা, সদস্য অমিত চাকমা রাজু, পরিষদ সদস্য মনোয়ারা জাহান, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাদল দে, পূজা উদ্্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক স্বপন কান্তি মহাজন সহ অন্যন্য নের্তৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।  
পুজামন্ডপ পরিদর্শনকালে বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটুট রাখতে এবং সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ। বর্তমান সরকার সবসময় সংখ্যালঘুদের পাশে আছে এবং থাকবে। তিনি বলেন, এই সরকার প্রতিটি মানুষের কল্যাণ ও সমৃদ্ধি চায়। দেশকে এগিয়ে নিতে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশে মৌলবাদী, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসীদের কোনে স্থান হবেনা।
রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্য বৃন্দ রাঙামাটির পৌর কলোনী নারায়ন মন্দির সার্বজনীন দূর্গোৎসব মন্ডপ, গর্জনতলি মন্দির সার্বজনীন দূর্গোৎসব মন্ডপ, কাঠালতলী মন্দির সার্বজনীন দূর্গোৎসব মন্ডপ, কালিন্দিপুর দশভুজা মন্দির সার্বজনীন দূর্গোৎসব মন্ডপ, কলেজ গেইট সার্বজনীন দূর্গোৎসব মন্ডপ, ভেদভেদী কালী মন্দির দূর্গোৎসব মন্ডপ, আসামবস্তী শীতলা মন্দির দূর্গোৎসব মন্ডপ, তবলছড়ি কালী মন্দির সার্বজনীন দূর্গোৎসব মন্ডপ পরিদর্শন করেন।
কোনো মন্ডপে যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সেদিকে খেয়াল রাখতে মন্দির কমিটিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা নেওয়ার পরামর্শ দেন চেয়ারম্যান।
রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions