বুধবার | ২৯ জুন, ২০২২
বান্দরবানে

আন্তর্জাতিক প্রসবজনিত ফিস্টুলা নির্মূল দিবস উদযাপন

প্রকাশঃ ২৩ মে, ২০২২ ০৪:০৯:৩৫ | আপডেটঃ ২৮ জুন, ২০২২ ০৯:০৫:৪৫  |  ১৯১
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। “ মানসম্মত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করি, কমিউনিটিকে সম্পৃক্ত করি, প্রসবজনিত ফিস্টুলা নির্মুল করি ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বান্দরবানে আন্তর্জাতিক প্রসবজনিত ফিস্টুলা নির্মূল দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৩মে (সোমবার) সকালে আন্তর্জাতিক প্রসবজনিত ফিস্টুলা নির্মূল দিবস উপলক্ষে বান্দরবানের সিভিল সার্জন কার্যালয় প্রাঙ্গন থেকে একটি র‌্যালী বের হয়ে বান্দরবান সদর হাসপাতালে এসে শেষ হয়। পরে হাসপাতালের সভাকক্ষে এক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বান্দরবান সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ এসএম ইকবাল হোসাইন এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ ভানু মারমা। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান সদর হাসপাতালের গাইনী রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ ফখরুনেছা বেগম, জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ)এর জেলা কর্মকর্তা ধনরঞ্জন ত্রিপুরা, হোপ ফাউন্ডেশন এর জেলা কোর্ডিনেটর মংএ মারমাসহ বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা।

সভায় বক্তারা বলেন, প্রসবজনিত ফিস্টুলা রোগ হলে নারীদের বিশেষজ্ঞ সার্জন দ্বারা সঠিকভাবে অপারেশন করলে শতকরা ৮০ভাগ প্রসবজনিত ফিস্টুলা রোগী ভালো হয়ে যায়। এসময় বক্তারা আরো বলেন, যদি কোন নারীর মাতৃত্বজনীত ফিষ্টুলা হয়ে থাকে তাহলে কোন প্রকার সংকোচ না করে নিকটবর্তী কমিউনিটি ক্লিনিক,ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র এবং  উপজেলা ও জেলা সরকারি হাসপাতালে গিয়ে সহজেই চিকিৎসা করাতে পারবে। সভায় বক্তারা আরো বলেন, বান্দরবানে ৫৯জন রোগীকে হোপ ফাউন্ডেশন (হোপ হাসপাতাল) এর মাধ্যমে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। কোন ফিস্টুলা মা যাতে আর কষ্ট না পায় সে লক্ষ্যে হোপ ফাউন্ডেশন ও জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ) কাজ করে যাচ্ছে। ফিস্টুলা রোগীদের চিকিৎসা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করা হয় এবং রোগী সুস্থ হওয়ার পর তাকে পূর্ণবাসনও করে দেওয়া হয়।


বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions