বান্দরবানে যৌথ অভিযানে গ্রেফতার বন্ধের দাবি

প্রকাশঃ ১৯ এপ্রিল, ২০২৪ ০৭:২৩:৪১ | আপডেটঃ ২২ জুন, ২০২৪ ০৬:৩৩:১২

সিএইচটি টুডে ডট কম ডেস্ক। বান্দরবানে যৌথ অভিযানের নামে গ্রেফতার হয়রানির প্রতিবাদে এবং গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে খাগড়াছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ (পিসিপি) খাগড়াছড়ি জেলা শাখা


আজ শুক্রবার (১৯ এপ্রিল ২০২৪) দুপুর ১২টায় খাগড়াছড়ি শহরে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি নারাঙহিয়ে থেকে শুরু হয়ে জেলা পরিষদ এলাকা প্রদক্ষিণ করে স্বনির্ভর বাজারে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় অর্থ সম্পাদক নরেশ ত্রিপুরা খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি শান্ত চাকমা এবং হিল উইমেন্স ফেডারেশনের খাগড়াছড়ি জেলা আহ্বায়ক এন্টি চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, গত এপ্রিল বান্দরবানের রুমা থানচি উপজেলায় নাটকীয় ব্যাংক ডাকাতি, পুলিশ-আনসার সদস্যদের অস্ত্র লুট ব্যাংক ম্যানেজারকে অপহরণের ঘটনা ঘটে। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সেনাপ্রধানের নির্দেশে  রুমা, থানচি, আলীকদম উপজেলায় যৌথবাহিনী  সাড়াশি অভিযানের নামে শিক্ষার্থীসহ ৬০ জনের অধিক বম সম্প্রদায়ের নারী-পুরুষকে গ্রেফতার করেছে। সর্বশেষ কেএনএফের সাথে সম্পৃক্ততার মিথ্যা অভিযোগে রাঙামাটির বিলাইছড়িতে জন ত্রিপুরাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে এই অন্যায় গ্রেফতারের ঘটনায় মানুষের তীব্র প্রতিবাদে জনকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামকে দেশবাসীর কাছে ভিন্নরূপে তুলে ধরতে সরকার তথা শাসকগোষ্ঠীর ষড়যন্ত্রের শেষ নেই। পার্বত্য চট্টগ্রামে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয় তখনই কৃত্রিম সমস্যা তৈরী করে যাচ্ছে। নিরীহ জনগণকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে সন্ত্রাসী চাঁদাবাজি তকমা লাগিয়ে মিথ্যা মামলায় জেলহাজতে প্রেরণ করছে।

 

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions