নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তের জিরো পয়েন্ট থেকে রোহিঙ্গাদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে

প্রকাশঃ ০৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩ ০৪:২৭:১০ | আপডেটঃ ২৩ জুন, ২০২৪ ০২:৪৪:৫৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তের জিরো পয়েন্ট অবস্থান নেয়া রোহিঙ্গাদের শুন্যরেখা থেকে সড়িয়ে ঘুমধুমের ট্রানজিট ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

রোববার (৫ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১১টার থেকে ঘুমধুম ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান একে এম জাহাঙ্গীর আজিজ এর সহায়তায় শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশন (আরআরআরসি) এর প্রতিনিধি প্রীতম শাহ এর তত্বাবধানে তুমব্রু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর আশেপাশে অবস্থান নেওয়া প্রায় ২হাজার ৯৭০জন রোহিঙ্গাদের মধ্যে প্রথম দফায় সকালে ৩৬ পরিবারের  ১৮৬জনকে ট্রানজিট ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হয়।
ঘুমধুম ইউপি চেয়ারম্যান একে এম জাহাঙ্গীর আজিজ জানান, পর্যায়ক্রমে নিবন্ধিত সকল রোহিঙ্গাকে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তের জিরো পয়েন্ট থেকে সরিয়ে ট্রানজিট ক্যাম্পে নেয়া হবে এবং সেখান থেকে পরবর্তী তাদের বিভিন্ন শরনার্থী শিবিরে পাঠানো হবে।

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রোমেন শর্মা জানান, নিবন্ধিত সকল রোহিঙ্গাকে পর্যায়ক্রমে নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তে থেকে সরিয়ে নেয়া হবে আর এইজন্য প্রশাসন সজাগ রয়েছে।

প্রসঙ্গত : গত ১৮জানুয়ারী বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু সীমান্তের শূন্যরেখায় রোহিঙ্গা সশস্ত্র গোষ্ঠী আরসা ও আরএসওর মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এক সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে,পরে দুর্বত্তদের দেয়া আগুনে শুন্যরেখায় থাকা রোহিঙ্গাদের ঘরবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেলে রোহিঙ্গা তাবু টাঙ্গিয়ে তুমব্রু বাজারে ও তুমব্রু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর আশেপাশে আশ্রয় গ্রহণ করে। পরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গাদের নাম ঠিকানা নিবন্ধন করে তাদের শরনার্থী শিবিরে সরানোর কার্যক্রম শুরু হয়।

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions