বৃহস্পতিবার | ২১ জানুয়ারী, ২০২১
বাঘাইছড়িতে পার্বত্য নাগরিক পরিষদের সদস্য সংগ্রহ উৎসব অনুষ্ঠিত

শান্তি ও উন্নয়নের ধারাকে বাঁধাগ্রস্থ করছে কিছু অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী : নাগরিক পরিষদ

প্রকাশঃ ১৬ নভেম্বর, ২০২০ ০৯:৫২:৩৮ | আপডেটঃ ২০ জানুয়ারী, ২০২১ ০৪:০৭:২৩  |  ১৭৯
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের সদস্য সংগ্রহ উৎসব অনুষ্ঠান গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ এর রাঙামাটি জেলা সিনিযর সহ সভাপতি ও বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান  আব্দুল কাইয়ুম এর সভাপতিত্বে বাঘাইছড়ি মুক্ত মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয়।

 এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের  কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বান্দরবান জেলা সভাপতি কাজী মজিবুর রহমান মুজিব। অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ,পার্বত্য চট্রগ্রাম নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব আলমগীর কবির,  রাঙামাটি জেলা সভাপতি শাব্বির আহম্মেদ, খাগড়াছড়ি জেলা সভাপতি আব্দুল মজিদ, রাঙামাটি জেলার সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোলায়মান, সহ-সভাপতি ও বাঘাইছড়ি উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল কাইয়ুম, খাগড়াছড়ি জেলার সাধারণ সম্পাদক মোঃ লোকমান সহ পার্বত্য চট্টগ্রাম ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শাহাদাৎ ফরাজি সাকিব, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদুল্লাহ আসাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পার্বত্যঞ্চলে শান্তি-সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার জন্য বর্তমান সরকার ১৯৯৭ সালের ২রা ডিসেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি করেছে। তারপর থেকে বর্তমান আওয়ামীলীগ সরকার পার্বত্যঞ্চলে বসবাসরত সকল সম্প্রদায়ের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করে চলেছে। আর সে শান্তি ও উন্নয়নের ধারাকে বাঁধাগ্রস্থ করছে কিছু অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। মানুষ খুন আর চাঁদাবাজি করে বাহিরে আয়েশি জীবন যাপন করা এসব সন্ত্রাসীরা কারো বন্ধু নয়। তারা আধিপত্য বিস্তার করতে ভয়-ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজী করে সাধারণ মানুষের মেহনতের টাকা নিয়ে ঢাকায় এসি গাড়ি-বাড়ি ব্যবহার করে রাজকীয় জীবন যাপন করে। তারা আরো বলেন, গুটি কয়েক বিশৃঙ্খলাকারি পাবর্ত্যাঞ্চলকে সন্ত্রাসী জনপদে পরিণত করার চেষ্টা করছে। সমাজ থেকে এদের প্রতিহত করতে হবে। পাহাড়ের সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে স্বাভাবিক জীবন যাপনে বাঁধা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। তা না হলে পাহাড়ে শান্তি আসবে না। এসব চাঁদাবাজি আর আধিপত্য বিস্তারের লড়াইয়ে বেশীরভাগ সাধারণ পাহাড়িরাই বলি হচ্ছে।

পাহাড়ের সন্ত্রাসী সংগঠন জেএসএস ও ইউপিডিএফ এর অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের উদ্দেশ্যে করে বলেন, পাহাড়ে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান ও শান্তি-সম্প্রীতি বজায় রাখতে  এখন সকলে সচেতন হতে হবে । বর্তমান সময়ে অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের আর কোন স্বপ্ন বাস্তবায়ন হতে দেয়া যাবে না । অবৈধ অস্ত্র ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসুন, অন্যথায় পাহাড়ে শান্তি ফেরাতে সন্ত্রাসী কার্যক্রমের বিরুদ্ধে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলা হবে বলে হুঁশিয়ারী দিয়ে, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সকল সম্প্রদায়ের জনগোষ্ঠীর প্রতি আহ্বান জানান বক্তারা ।


রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions