রবিবার | ৩১ মে, ২০২০
বান্দরবানে

অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনকারীদের ক্রাসিং মেশিন ধ্বংস করলো ভ্রাম্যমান আদালত

প্রকাশঃ ০৩ এপ্রিল, ২০২০ ০৪:২৮:৩১ | আপডেটঃ ৩০ মে, ২০২০ ১২:৩৯:২৭  |  ৩৬৩
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার বিভিন্নস্থানে অবৈধভাবেভাবে পাথর উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

বুধবার ও বৃহস্পতিবার (১ ও ২ এপ্রিল) দুইদিনব্যাপী বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার বিভিন্নস্থানে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়। এসময় বান্দরবানের দুর্গম আলীকদম উপজেলার পাইনছড়ার আগা, বুচি খাল, ছোট বেতি, বড় বেতি নামক স্থানে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হয় এবং অভিযানে দেড় লক্ষাধিক ঘনফুট পাথর উদ্ধার হয়।  দুর্র্গম এলাকা হওয়ায় একটি পাথর কাটার মেশিন নষ্ট করা হয় এবং একটি মেশিনসহ পাথর ভাঙার বিভিন্ন যন্ত্রপাতি জব্দ করে আলীকদম থানার হেফাজতে দেয় পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমান আদালত।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন পরিবেশ অধিদপ্তরের বান্দরবান কার্যালয়ে সিনিয়র কেমিস্ট এ,কে,এম, ছামিউল আলম কুরসি। এসময় জুনিয়র কেমিস্ট আবদুছ ছালাম, আলীকদমের ফরেস্টার মিনার চৌধুরীসহ লামা বন বিভাগ ও আলীকদম থানা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরিবেশ অধিদপ্তরের বান্দরবান কার্যালয়ে জুনিয়র কেমিস্ট আবদুছ ছালাম বলেন, অভিযানের পর মামলা করার প্রস্তুতি চলছে, শীঘ্রই আমরা পরিবেশ আইনে মামলা দায়ের করবো।


সিনিয়র কেমিস্ট এ,কে,এম, ছামিউল আলম কুরসি বলেন, অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের ফলে প্রাকৃতিক পরিবেশ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এবং প্রাকৃতিক ঝিড়ি মরে যাচ্ছে। ফলে পাহাড়ে পানির উৎস কমে যাচ্ছে। অবৈধ পাথর উত্তোলনকারী এবং এদের সাথে জড়িত সবার বিরুদ্ধেই আমরা আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

পরিবেশ অধিদপ্তরের বান্দরবান কার্যালয়ে সিনিয়র কেমিস্ট এ,কে,এম, ছামিউল আলম কুরসি আরো বলেন, বান্দরবানের বিভিন্ন ঝিড়ি-ঝর্না থেকে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে এবং কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions