বুধবার | ০৫ অগাস্ট, ২০২০

কাল ১৪ ডিসেম্বর বান্দরবান মুক্ত দিবস

প্রকাশঃ ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১১:২৪:২৯ | আপডেটঃ ০৫ অগাস্ট, ২০২০ ০৪:২০:৪০  |  ৪৭৮
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় পার্বত্য জেলা বান্দরবান। এদিনে জেলা শহরের বর্তমান পানি উন্নয়ন বোর্ডের অফিসটিতে প্রথম মুক্তিযোদ্ধারা লাল-সবুজের বিজয়ের পতাকা উড়িয়ে জানিয়ে দেয় আজ থেকে বান্দরবান হানাদার মুক্ত।  দেশের অন্য স্থানের মত বান্দরবানে বড় ধরনের যুদ্ধ না হলেও যুদ্ধচলার সময়ে বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার নোয়াপতং ইউনিয়নের ক্যানাইজু পাড়ায় পাকিস্থানি বাহিনীর সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধে শহীদ হন মুক্তিযোদ্ধা টিএম আলী।
 
রাজাকাররা বান্দরবান সদরের বালাঘাটার চড়ুই পাড়া এলাকায় আলী আহম্মদ, কাশেম আলীসহ তিনজনকে হত্যা করে। এছাড়া কোর্ট দারগা মনমোহন ভট্টচার্য্য ও তার শিশু সন্তান রতনকেও মেঘলা এলাকায় নিয়ে হত্যা করে। যুদ্ধচলার সময়ে রোয়াংছড়ির নোয়াপতং ইউনিয়নের ক্যানাইজু পাড়া এলাকায় পাকিস্থানি বাহিনীর সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধ হয়। সেখানে শহীদ হন মুক্তিযোদ্ধা টিএম আলী। এরপর পরই মুক্তিযোদ্ধাদের তীব্র প্রতিরোধের মুখে সেখান থেকে পাকিস্তানী বাহিনী পিছু হটতে শুরু করে।
 
আর ১৯৭১ সালের ১৪ই ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় পার্বত্য জেলা বান্দরবান। এই দিন বান্দরবানের মুক্তিকামি জনগণ জয়বাংলা বলে আনন্দ উল্লাস শুরু করে বিজয়ের পতাকা উত্তোলন করে। তৎকালিন মহুকুমা প্রশাসক আবদুর শাকুরের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা এবং স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা সেদিন বিজয়ের পতাকা উত্তোলন করেন।
 
বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions