মঙ্গলবার | ১৬ জুলাই, ২০১৯
সাংবাদিক সম্মেলনে পুলিশ সুপার জাকির হোসেন

বান্দরবানে স্বচ্ছতার মাধ্যমে পুলিশ সদস্য নিয়োগ করা হয়েছে

প্রকাশঃ ১১ জুলাই, ২০১৯ ০১:৩৭:৪৮ | আপডেটঃ ১৬ জুলাই, ২০১৯ ০২:০৬:৫৫  |  ৬৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবানে মেধা ও স্বচ্ছতার ভিত্তিতে কনস্টেবল নিয়োগ বিষয়ে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকালে পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মেধা ও স্বচ্ছতার ভিত্তিতে কনস্টেবল নিয়োগ বিষয়ে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আলী হোসেন, রুমা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রেজওয়ানুল হক, জেলা বিশেষ শাখা (ডিআইওওয়ান) মোঃ বাচাঁ মিয়া, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, টিআই (প্রশাসন) সালাহ্ উদ্দিন মামুন, বান্দরবান প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হক, যমুনা টেলিভিশনের প্রতিনিধি বাটিং মার্মা, মোহনা টেলিভিশনের প্রতিনিধি রাহুল বড়–য়া ছোটন, চ্যানেল নাইন প্রতিনিধি এনএ জাকির, চ্যানেল ২৪ প্রতিনিধি ইয়াছিনুল হাকিম চৌধুরী সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইল্ট্রেনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা। 

এসময় সাংবাদিক সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার বলেন, সম্প্রতি বান্দরবান পার্বত্য জেলায় পুলিশ রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগ সম্পন্ন হয়েছে। এ বিষয়ে দুটি কথা বলার জন্য এবং বিষয়টি আপনাদের সাথে শেয়ার করার জন্য আজকের এই সাংবাদিক সম্মেলন। বাংলাদেশ পুলিশে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে সর্বমোট ৯৬৮০ জন পুরুষ ও নারী নিয়োগের লক্ষ্যে গত ২৪/০৫/২০১৯ খ্রিঃ ০৩টি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। সে মোতাবেক বান্দরবান পার্বত্য জেলায় বাংলাদেশ পুলিশে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগের লক্ষ্যে জেলা সদরসহ জেলার প্রতিটি থানা এলাকায় মাইকিংসহ বিভিন্ন দপ্তরের নোটিশ বোর্ডে নোটিশ প্রদানের মাধ্যমে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তাছাড়া ইউটিউব ও ফেইসবুকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছিল।

বান্দরবান পার্বত্য জেলায় পূর্ব নির্ধারিত তারিখ মোতাবেক গত ২৪/০৬/২০১৯ খ্রিঃ পুলিশ লাইন্স মাঠে আগ্রহী প্রার্থীদের শারীরিক মাপ ও শারীরিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত শারীরিক মাপ ও শারীরিক পরীক্ষায় মোট ২০৪ জন পুরুষ ও ৩৬ জন নারীসহ সর্বমোট ২৪০ জন আগ্রহী পুরুষ ও নারী প্রার্থী অংশ গ্রহণ করে। তৎমধ্যে ১১৪ জন পুরুষ ও ২০ জন নারীসহ সর্বমোট ১৩৪ জন প্রার্থী শারীরিক মাপ ও শারীরিক পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়। শারীরিক মাপ ও শারীরিক পরীক্ষায় উর্ত্তীণ প্রার্থীদের গত ২৫/০৬/২০১৯ খ্রিঃ মোট ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। লিখিত পরীক্ষায় ৮১ জন পুরুষ ও ১৭ জন নারীসহ সর্বমোট ৯৮ জন উর্ত্তীণ হয়। লিখিত পরীক্ষায় উর্ত্তীণ প্রার্থীদের গত ২৭/০৬/২০১৯ খ্রিঃ মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। মৌখিক পরীক্ষায় ৫৭ জন পুরুষ ও ১৫ জন নারীসহ সর্বমোট ৭২ জন প্রার্থী উর্ত্তীণ হয়।

গত ৩০/০৬/২০১৯ খ্রিঃ উক্ত ৭২ জন উর্ত্তীণ প্রার্থীর চূড়ান্ত ডাক্তারী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত ডাক্তারী পরীক্ষায় ০২ জন প্রার্থী শারীরিক সমস্যার কারণে অযোগ্য বলে বিবেচিত হয় এবং ০১ জন প্রার্থী ডাক্তারী পরীক্ষায় অনুপস্থিত থাকে। ডাক্তারী পরীক্ষায় চূড়ান্তভাবে ৫৪ জন পুরুষ ও ১৫ জন নারীসহ সর্বমোট ৬৯ জন নির্বাচিত হয়। উক্ত নির্বাচিত ৬৯ জন প্রার্থীর পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরম পূরণ করত তা অনুসন্ধানের জন্য সংশ্লিষ্ট থানার অফিসার ইনচার্জদের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে। উক্ত ৬৯ জন পুরুষ ও নারী প্রার্থীর মধ্যে হতে বান্দরবান পার্বত্য জেলার অনুকূলে ৫০ জন পুরুষ ও ০৯ জন নারীসহ সর্বমোট ৫৯ জনকে বাংলাদেশ পুলিশের ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে চূড়ান্তভাবে মনোনিত করে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের নির্দেশনা মোতাবেক ৬ মাসের মৌলিক প্রশিক্ষণ গ্রহণের জন্য নির্ধারিত পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারে প্রেরণ করা হবে।

বান্দরবান পার্বত্য জেলায় বাংলাদেশ পুলিশে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে নিয়োগ সম্পূর্ণ স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষভাবে মেধা এবং যোগ্যতার ভিত্তিতে হয়েছে। কোন ধরণের দূর্নীতি, স্বজনপ্রীতি এবং পক্ষপাতিত্ব অবলম্বন করা হয়নি। বাংলাদেশ পুলিশে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগে স্থানীয় বিভিন্ন সাংবাদিক ভাইয়েরা আমাকে বিভিন্ন ধরণের তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করছেন। যার প্রেক্ষিতে বান্দরবান পার্বত্য জেলায় একটি স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ এবং দূর্নীতি মুক্ত নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা সম্ভব হয়েছে।

বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions