কাউন্টার টেররিজম বিভাগের কার্যক্রম নিয়ে খাগড়াছড়িতে মিট দ্যা প্রেস অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

প্রকাশঃ ৩১ অক্টোবর, ২০১৯ ০৭:০১:৪৯ | আপডেটঃ ১৫ জুলাই, ২০২০ ০৮:১৩:০৪
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। তৃণমুল থেকে উগ্রবাদকে উচ্ছেদ করতে  হলে জনসচেতনা ও জনসম্পৃক্তকার কোন কোন বিকল্প নেই। মানুষ উগ্রবাদী তথা সন্ত্রাসীদের ঘৃনা এবং অসহযোগিতা করলেই  তাদের মনস্তাতিক কার্যক্রম সমুলে উৎপাদন করা সম্ভব  হবে। এক্ষেত্রে মিডিয়া মিডিয়া শক্তিশালী ভুমিকা রাখতে পারে।

বুধবার রাতে খাগড়াছড়ি পুলিশ লাইন্সে কাউন্টার টেররিজম বিভাগের কার্যক্রম নিয়ে মিট দ্যা প্রেস অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করা হয়। বাংলাদেশ পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের উদ্যোগে  গত দুই দিনে খাগড়াছড়ি জেলায় বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের সাথে ধারাবাহিকভাবে আয়োজিত ৬টি সংলাপের তথ্য এবং  কাউন্টার টেররিজম বিভাগের কার্যক্রম  সর্ম্পকে স্থানীয় সাংবাদিকদের অবহিত করতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম বিভাগের (এডিসি) পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান এর সভাপতিত্বে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মোহাঃ আহমার উজ্জামান। বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( অপরাধ ও প্রশাসন) এমএম সালাহ উদ্দিন,খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সভাপতি জীতেন বড়–য়া,খাগড়াছড়ি সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক কানন আচার্য্য প্রমুখ।

ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম বিভাগের (এডিসি) পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান  জানান, উগ্রবাদ দমন ও প্রতিরোধই তাদের মুল কাজ। ২০১৬ সালে সিটিটিসি প্রতিষ্ঠার পর এ পর্যন্ত ২৬টি হাইরিক্স অপারেশন,৯৮টি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এসব অভিযানে ৭৩ জন মারা গেছে। আটক করা  হয়েছে ৪শ জনকে। তিনি জানান, উগ্রবাদীদের পরিকল্পিত অপ-প্রচার ও মগজ ধোলাই কার্যক্রম প্রতিরোধে সহসাই বেতার টেলিভিশনের ব্যাপক প্রচারনা চালানোর পাশাপাশি সারাদেশে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষকে সচেতন করতে বুদ্ধিভিত্তিক কার্যক্রম হাতে  নেয়া  হয়েছে।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় সাংবাদিকদের বিভিন্ন পরামর্শ ও সুপারিশও গ্রহন করা হয় ।

সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions