রবিবার | ১৭ অক্টোবর, ২০২১

খাগড়াছড়িতে সাততলা মহিলা অধিদপ্তর এবং নৈসর্গিক শিশুপার্ক নির্মাণ করা হবে

প্রকাশঃ ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০৭:২১:২৩ | আপডেটঃ ১৭ অক্টোবর, ২০২১ ০২:৩৪:১৩  |  ২৭২
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে তের কোটি পয়তাল্লিশ টাকা ব্যয়ে নির্মিত চারতলা বিশিষ্ট এ ভবন উদ্বোধনে এসে আরো একটি সাততলা মহিলা অধিদপ্তর ভবন এবং নৈসর্গিক শিশুপার্ক নির্মাণে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন, সরকারের মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দরা এমপি।

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে এ ভবনের উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেন, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার শিশু একাডেমি ভবন নির্মাণের  ফলে সাংস্কৃতিক চর্চার মাধ্যমে শিশুদের সুষম মানসিক ও সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ  হবে। তারা বিজ্ঞান মনস্ক ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠবে। শিশু একাডেমির কার্যক্রম যথাযথ বাস্তায়নের মাধ্যমে এই জেলার শিশুরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। তাদের নিজস্ব সংস্কৃতি জাতীয় পর্যায় ও বিদেশেও তুলে ধরতে পারবে।

প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা অভিভাবক ও শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, 'আপনারা শিশুদের শুধুমাত্র পাঠ্য বইয়ের মধ্য সীমাবদ্ধ রাখবেন না। শিশুদের মেধা ও মনন বিকাশে তাদের সৃজনশীল কাজে যুক্ত করতে হবে। আমরা দেখছি, এখন শিশুরা অল্প বয়স থেকে টিভি, মোবাইল, ইন্টারনেট ও ভিডিও গেমের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে। যা শিশুদের সুষম বিকাশকে বাধাগ্রস্থ করছে। অনেকের জীবনও ঝুকিপূর্ণ হয়ে উঠছে'।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ সায়েদুল ইসলাম, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান বেগম চেমন আরা তৈয়ব, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক রাম চন্দ্র দাস ও শিশু একাডেমির মহাপরিচালক জ্যোতি লাল কুরী উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত পুলিশ মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান ও জেলা আওয়ামীলীগ’র সহ-সভাপতি কল্যাণ মিত্র বড়–য়াসহ সরকারি, জনপ্রতিনিধি ও নারী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিল।


প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় নারী ও শিশুর সুরক্ষায় সচেতনতা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। প্রয়োজনে আইনের কঠোর প্রয়োগ করা হচ্ছে। অপরাধীদের শাস্তি ও দ্রুত বিচার নিশ্চিত করতে সরকার ট্রাইবুনাল ও বিচারকের সংখ্যা বৃদ্ধি করেছে।


বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম বলেন, খাগড়াছড়ি জেলা শিশু একাডেমি ভবন এ জেলার শিশুদের মেধা ও মননের নান্দনিক বিকাশে গুরত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী দু:স্থ নারীদের মাঝে খাদ্য সহয়তা ও স্বেচ্ছাসেবী সমিতিকে অনুদানের চেক প্রদান করেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে শিশুদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions