বুধবার | ০৩ মার্চ, ২০২১

আঞ্চলিক সংগঠনগুলো সব সময় সাম্প্রদায়িক মনোভাব নিয়ে থাকে: দীপংকর তালুকদার এমপি

প্রকাশঃ ২২ জানুয়ারী, ২০২১ ০৪:১৫:২৭ | আপডেটঃ ০৩ মার্চ, ২০২১ ০২:৫০:২৬  |  ৩৭৩
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার এমপি বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটি সহ তিন পার্বত্য জেলায় আঞ্চলিক সংগঠনগুলো সবসময় পাহাড়ী-বাঙালী ভেদাভেদ সৃষ্টি করে ও সাম্প্রদায়িক মনোভাব নিয়ে থাকে। সব সময় তারা পাহাড়ের উন্নয়নে বাধাগ্রস্থ করে। তারা পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়ন চায় না।

আজ শুক্রবার (২২ জানুয়ারী ২১) সকাল ১০টায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের উদ্যোগে জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত অসহায় ও দু:স্থদের মাঝে শীতবস্ত্র ও শিক্সা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের ছাত্রনেতা অনুপম ভট্টাচার্য্য এর সঞ্চালনায় সভায় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন, সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা, শ্রী কুশ বড়ুয়া অর্নবসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

দীপংকর তালুকদার এমপি আরো বলেন, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের ডাক্তাররা যখন স্বাস্থ্যসেবা দেয়া শুরু করছে তখনই একটি মহল এই প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য ছড়িয়ে দিয়েছে সর্বত্র। কিন্তু বর্তমানে তারা তাদের ভুল বুঝতে পেরে তাদের ছেলেমেয়েদের এই মেডিকেলে ভর্তি করাচ্ছে। তিনি বলেন, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা দেশের অন্য জেলার মেডিকেল কলেজগুলো থেকে সম্পূর্ণ আলাদা পরিচয় বহন করবে। সেদিন অনেক ত্যাগ তিতীক্ষাময় পরিস্থিতিতে পথচলা শুরু করা রাঙামাটি মেডিকেল কলেজের বর্তমান শিক্ষার্থীরা পাহাড়ের একটি নতুন ইতিহাসের অংশ হয়ে থাকবে।

তিনি আরো বলেন, পার্বত্য জনগনের উন্নত চিকিৎসা সেবার জন্য প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠা করে দিয়েছেন। উন্নত চিকিৎসার অভাবে পার্বত্য এলাকার অনেক রোগীকে চট্টগ্রাম নেয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়। রাঙামাটিতে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার কাজ চলছে। এতে অনেকাংশে রোগীদের কষ্ট দূর হবে।


রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions