বৃহস্পতিবার | ১৬ জুলাই, ২০২০

ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের সাইনবোর্ড স্থাপন ও সচেতনতামুলক প্রচারণা

প্রকাশঃ ০৪ জুন, ২০২০ ০৯:০৫:৩৪ | আপডেটঃ ১৬ জুলাই, ২০২০ ০২:৫০:০৬  |  ১৯৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটিতে পাহাড় ধসে প্রাণহানি রোধে আগাম প্রস্তুতি হিসেবে সচেতনতা সৃষ্টিসহ ভারি বর্ষণে ঝুকিপুর্ণ স্থানে বসবাসরত যেন নিকটস্থ আশ্রয়ে কেন্দ্রে অবস্থান নেন সে বিষয়ে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন।

আজ বৃহস্পতিবার (০৪ জুন) দুপুরে রাঙামাটি শহরের প্রবেশমুখ রূপ নগর, শিমুলতলী, নতুন পাড়াসহ কিছু এলাকাকে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা চিহ্নিত করে সেখানে সচেতনতামূলক সাইবোর্ড লাগিয়েছে জেলা প্রশাসন। একই সাথে স্থানীয়দের মাঝে সচেতনতা জন্য লিফলেট বিতরণ করা হয়।

এসময় জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পল্লব হোম দাশ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইসলাম উদ্দিন, ৬নং ওয়ার্ড কমিশনার রবি মোহন চাকমা সহ স্থানীয় জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জেলা প্রশাসক অতি বর্ষণ হলে রাঙামাটি শহরের প্রবেশমুখ রূপ নগর, শিমুলতলী, নতুন পাড়া এলাকা, মনতলা, যুব উন্নয়ন এলাকাসহ বিভিন্ন পাহাড়ে বসবাসরত মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে যাওয়ার অনুরোধ জানান।

জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ জানান,  পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ স্থান চিহ্নিত করে সাইনবোর্ড লাগানো হয়েছে, ‘প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলার পরিকল্পনা হিসেবে যেসব কার্যক্রম হাতে নিয়েছি। এর অংশ হিসেবে শহরের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বসবাসরত এলাকায় আমরা সাইনবোর্ড লাগিয়ে দিচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, অতি বর্ষণে ২০১৭ সনে এবং ২০১৯ সনে রাঙামাটিতে প্রাণ হানির ঘটনা ঘটেছে, আর যাতে না ঘটে আমরা সে বিষয়ে তৎপরতা চালাচ্ছি। জনগনকে সচেতন করছি।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে করোনা ভাইরাসের সাথে রাঙামাটিবাসীকে প্রাকৃতিক দুর্যোগও মোকাবেল করতে হচ্ছে। অতি বর্ষণ বা দুযোর্গ দেখা দিলে যাতে মানুষ দ্রুত আশ্রয় কেন্দ্রে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে আসতে পারে সেজন্য পৌর এলাকায় ২৬টি অস্থায়ী আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে, এছাড়া জেলার উপজেলাগুলোর প্রত্যেক প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল কমিটিকে চিঠি দেয়া হয়েছে তারা যেন স্কুলগুলোকে আশ্রয় কেন্দ্রের জন্য প্রস্তুত করে রাখে।



রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions