সোমবার | ২১ অক্টোবর, ২০১৯

রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন

প্রকাশঃ ০৭ অক্টোবর, ২০১৯ ১০:৩০:০৭ | আপডেটঃ ২১ অক্টোবর, ২০১৯ ০৩:৫০:৪২  |  ২৩৮
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে রাঙামাটির বিভিন্ন পুজা মন্ডপে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সোমবার (০৭অক্টোবর) সন্ধ্যায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা শহরের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করে সনাতনী ধর্মালম্বীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এ সময় পূজা মন্ডপগুলোতে পূজা পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ ও জেলা পূজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দ চেয়ারম্যানকে স্বাগত জানান।

পূজা মন্ডপ পরিদর্শন কালে চেয়ারম্যান বিভিন্ন পূজা মন্ডপে ভক্তবৃন্দদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘অশুরের শক্তি যেমন মহত্তের কাছে হার মেনেছে। তেমনি ধর্মের নামে যারা দেশে সন্ত্রাস, বোমাবাজি, চাঁদাবাজি ও মানুষ হত্যা করছে তাদের অশুভ শক্তিকে ধ্বংস করে অসাম্প্রায়িক দেশ গড়তে সকল ধর্মের লোককে এগিয়ে আসতে হবে।

পূজা মন্ডপ পরিদর্শন কালে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাদল চন্দ্র দে, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক স্বপন কান্তি মহাজন, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শ্যামল মিত্র’সহ অন্যান্য নের্তৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। 

চেয়ারম্যান আরো বলেন, এদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে এদেশের সকল ধর্মের মানুষ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে শািিন্ত পূর্ণভাবে যে যার যার ধর্ম পালন করতে পারে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বাস করে বলেই দেশের সকল ধর্মের শান্তি প্রতিষ্ঠায় সরকারের পক্ষ হতে বিভিন্ন ধর্মীয় ও উন্নয়ন মুলক প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করে দিচ্ছে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশে জঙ্গীবাদ, মৌলবাদী  ও সন্ত্রাসীদের কোন স্থান হবেনা। তিনি পুজা মন্ডপে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে, সেদিকে লক্ষ্য রাখতে মন্দির কমিটিকে আইনশৃংখলা বাহিনীর সহযোগিতা নেওয়ার পরামর্শ দেন। 

শারদীয় দুর্গোৎসবে মহা নবমীতে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা ও ধর্মীয় মর্যাদায় রাঙামাটিতেও উদযাপিত হয়েছে মহা নবমী পূজা। নবপত্রিকা স্থাপনের মধ্যদিয়ে মহাশক্তি আনন্দময়ীর পূজা শুরু হয়।

এদিকে দুপুরের পর থেকে মন্ডপ গুলোতে ঢল নামে ভক্ত ও দর্শনার্থীদের। মন্ডপে মন্ডপে দর্শনার্থীদের ছিলো উপচে পড়া ভীড়। পূজা, অচর্না, অঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ করা হয় দর্শনার্থীদের মধ্যে। শুধু হিন্দু ধর্মাবলম্বীরাই নন, সব ধর্মের দর্শনার্থীরাই অংশ নেন এ আয়োজনে।

রাঙামাটি জেলার পূজা রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা মহা সপ্তমী হতে নবমী পর্যন্ত রাঙামাটির বরকল, বাঘাইছড়ি, লংগদু উপজেলা ও রাঙামাটি জেলা সদরের বেশ কয়টি পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন এবং পুজা উদযাপন ও মন্দির পরিচালনা কমিটিদের সাথে কুশল বিনিময় করেন।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions