শিরোনামঃ

রাইখালীতে জেএসএসের দুই সদস্যকে মারধরের অভিযোগ

সিএইচটি টুডে ডট কম ডেস্ক। আজ রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলাধীন রাইখালী ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের হাতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির রাইখালী ইউনিয়ন কমিটির দুইজন সদস্যকে বেদম মারধরের অভিযোগ এনে ঘটনায় জনসংহতি সমিতির কাপ্তাই থানা কমিটি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি কাপ্তাই শাখার সহ সভাপতি জন চাকমা প্রেরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, আজ সকাল ১১টায়  কাপ্তাই উপজেলাধীন রাইখালী ইউনিয়নের ডংনালা গ্রাম থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির রাইখালী ইউনিয়ন কমিটির সদস্য উষামং মারমাকে (৩৮) তাঁর বাড়ি থেকে স্থানীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের লোকজন ধরে নিয়ে যায়। এসময়  মারধর করতে করতে উষামংকে কাপ্তাই উপজেলাধীন কোদালা গ্রামের দিকে ধরে নিয়ে যায়। তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয় পুলিশকে বিষয়টি জানানো হলেও পুলিশের পক্ষ থেকে কোন কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। এদিকে দুপুর ১টার দিকে এলাকাবাসী কোদালা গ্রাম থেকে সারাশরীরে মারাত্মক জখম অবস্থায় অপহৃত উষামং মারমাকে উদ্ধার করে। এরপর তাকে গুরুতর জখম অবস্থায় চন্দ্রঘোনা মিশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অন্যদিকে আজ দুপুর সাড়ে বারোটায় জনসংহতি সমিতির রাইখালি ইউনিয়ন কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক কংহ্লাঅং মারমা (৪০) রাইখালি বাজারে গেলে ছাত্রলীগ-আওয়ামীলীগের লোকজন বেদম মারধর করে। স্থানীয় জনগণ কংহ্লাঅং মারমাকে উদ্ধার করে বরইছড়ি হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

কোন উস্কানী ছাড়াই জনসংহতি সমিতির সদস্যদের উপর এহেন কাপুরোচিত হামলা ও মারধরের ঘটনায় জড়িত আওয়ামীলীগ-ছাত্রলীগের সদস্যদের অচিরেই গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য জনসংহতি সমিতির কাপ্তাই থানা কমিটি জোর দাবি জানাচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

Share This:

খবরটি 87 বার পঠিত হয়েছে


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

ChtToday DOT COMschliessen
oeffnen