শিরোনামঃ

বিএনপি নেতা ওয়াদুদ ভুইয়াকে নিয়ে ফেইসবুকে আবেগভরা ষ্ট্যাটাস

পার্বত্য চট্টগ্রামের ধ্রুবতারা: জননন্দিত ওয়াদুদ ভুইয়া

জননেতা ওয়াদুদ ভুইয়া শুধু একজন রাজনৈতিক নেতার নাম নয়, নয় নির্দিষ্ট জাতিসত্তা কিংবা দলের নেতা, জনাব ওয়াদুদ পার্বত্য চট্টগ্রামের গণ মানুষের নেতা। যিনি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী, উন্নয়ন এবং শান্তি প্রতিষ্ঠার কান্ডারী। আপনারা (পার্বত্যবাসী) অত্যন্ত ভাগ্যবান যে ওয়াদুদ ভুইয়ার মত একজন বিচক্ষণ, দুরদর্শী, মেধাবী,অনেস্ট,পরিশ্রমী,ত্যাগী এবং কর্মী বান্ধব নেতা পেয়েছেন।

আমি মনেকরি, পাহাড়ি এই জনপদের জন্য ওয়াদুদ ভুইয়া হল ঈশ্বরের বিশেষ উপহার। একবার এম পি হয়ে যিনি এই জনপদের চিত্র পালটে দিয়েছেন উন্নয়ন কর্মকান্ডের মাধ্যমে। বদলে দিয়েছেন মানুষের রুচিবোধ, ধ্যান ধারনা, শিক্ষা, সংস্কৃতি, অর্থনীতির চাকা। পার্বত্য চট্টগ্রামে ওয়াদুদ ভুইয়ার উন্নয়ন কর্মকান্ডকে তুলনা করা যায় হিমালয় পর্বতের চূড়া কিংবা কাঞ্চন জংঘার সাথে। আপনি যেই দল কিংবা আদর্শের হোন না কেন ওয়াদুদ ভুইয়ার অবদান অস্বীকার করার কোন সুযোগ নেই।

# জনাব ওয়াদুদ ভুইয়া পার্বত্য চট্টগ্রামের সর্বশ্রেষ্ঠ অভিবাবক। পাহাড়ি, বাঙালী তথা সর্বস্তরের মানুষের নেতা। ওয়াদুদ ভুইয়া একটা ইতিহাস। অনেক বছর পর হয়তো তাঁকে নিয়ে ইতিহাস রচিত হবে। পরবর্তী প্রজন্ম তাঁর গল্প শুনে অনুপ্রাণিত হবে, তাঁকে আদর্শ হিসেবে গ্রহন করবে। ওয়াদুদ ভুইয়াকে নিয়ে রচিত হবে গান, গল্প, কবিতা। ওয়াদুদ ভুইয়ার নামে নির্মিত হবে ক্লাব, লাইব্রেরী, সাংস্কৃতিক এমনকি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। মুলত, ওয়াদুদ ভুইয়ার প্রতি ভালবাসা থেকেই মানুষ তা করবে। এই জনপদের জন্য তিনি যা করেছেন আগামী ১০০ বছরে অন্য কারো পক্ষে তা করা সম্ভব হবে কিনা সেটা তর্কের বিষয় তবে তর্কাতীত হল ওয়াদুদ ভুইয়ার বিকল্প কেউ হতে পারবে না, তিনি ‘পার্বত্য কিংবদন্তী’।

# যদি দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়, ফ্রি & ফেয়ার ইলেকশন হয় তাহলে আগামীতে যতবার নির্বাচন করবেন ততবারই তিনি নির্বাচিত হবেন এবং এই জনপদের মানুষকে উন্নয়নের সর্বোচ্চ পর্যায় পৌছতে পারবেন বলে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি। সত্যি বলতে কি ওয়াদুদ ভুইয়ার মত এত জনপ্রিয় নেতা এদেশে বিরল। জননেতা ওয়াদুদ ভুইয়ার দীর্ঘায়ু, সুস্থতা এবং সার্বিক মঙ্গল কামনা করি। সকলে ভাল থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। আমার জন্য দোয়া করবেন।

প্রি থু দা

 

একজন ফেইসবুক বন্ধুর অনুরোধে লিখাটি প্রকাশ করা

on

খবরটি 272 বার পঠিত হয়েছে


Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*
*

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

ChtToday DOT COMschliessen
oeffnen